রজনী শবেবরাত

চৌধুরী শিপন :

আজ ১৪ ই শাবান ১৪৩৯ হিজরী, মহা বরকত ও কল্যাণময় রজনী শবেবরাত। বিশ্ব মুসলিম জাতির স্থায়ী ও সৌভাগ্যের বার্তা বয়ে আনে এই মহিমান্বিত রাত।

মহান আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের নিকট শান্তির প্রত্যাশায় ইবাদত অর্থাৎ তার দাসত্ব মেনে নেয়া এবং সকল আদেশ নিষেধের প্রতি অনুগত্য প্রকাশ করা। এ বিষয়ে মহান রাব্বুল আলামীনের অমিয় বাণী আমি আমার বান্দাদের শুধুমাত্র আমার ইবাদতের জন্য সৃষ্টি করেছি । আর তাই বান্দার সর্বদা আল্লাহর ইবাদতের মধ্যে থাকাই উত্তম।  এমন কিছু সময় আছে যা আল্লাহর নীকট অধিক প্রিয় যাতে এক ঘন্টা ইবাদতের ফল ছাব্বিশ ঘন্টার সমান সওয়াবের অধিকারী হওয়া যায় যেমন , তুমি যদি আল্লাহর নীকটবর্তী হতে চাও তবে রাতের শেষ প্রহরে চার কি আট রাকাত তাহাজ্জুতুল নামাজ আদায় কর , যা সারা দিনের অন্যান্য নফল ইবাতের চেয়ে উত্তম। নিশ্চয় নভমন্ডল ভু মন্ডল সৃষ্টি রাত দিনের পরিবর্তন এবং বিভিন্ন মাস দিবস রজনীসমুহ একক বৈশিষ্ট মন্ডিত। এমনি ভাবে মুসলিম জাহানে হাতে গোনা কটা রাত আসে যা কিনা আল্লাহ ও তার রাসুলের নিকট অতি প্রিয় ও গ্রহনযোগ্য। এমনি এক রাত যা কিনা ইবাদতের জন্য অতিব উত্তম। এই পবিত্র রাত সম্পর্কে মহানবী ( সা:) অসংখ্য বাণীতে বলেছেন , রজব হল আল্লাহর মাস , শাবান হল আমার মাস আর রমজান হল আমার উম্মতের মাস ।

শবেবরাত দুটি শব্দে গঠিত। শব ফারসি শব্দ ,যার অর্থ রাত আর বরাত শব্দের অর্থ  মুক্তি নিস্কৃতি পরিত্রাণ ইত্যাদি। শবে বরাত হলো মহামার্জনার রজনী । আর এই রাতে বান্দা ইবাদত বন্দেগী তওবা ইস্তেগফার দ¦ারা জাহান্নাম থেকে আল্লাহর ক্রোধ থেকে নাজাত লাভ করে থাকে তাই একে লাইলাতুল বারাআত বলা হয়। হাদিস শরীফে এই পবিত্র রাতকে “ লাইলাতুন নিফসে মিন শাবান ”অর্থাৎ শাবানের রাত হিসাবে অভিহিত করা হয়েছে। মহানবী ( সা:) থেকে বর্নিত আছে আল্লাহ তা’আলা শাবান মাসের ১৪ তারিখ দিবাগত রাত্রে  বান্দাদের প্রতি রহমতের দৃষ্টিতে তাকান ।  রাসুল ( সা:) আরো বলেন , নিশ্চয়ই আল্লাহতায়ালা অর্ধ শাবানের রাতে প্রথম আসমানে অবতীর্ণ হন এবং কালব গোত্রের মেষ পালের পশম সংখ্যার অধিক ব্যক্তিকে ক্ষমা করেন। এবং মুশরিক হিংসা বিদ্বেষ পোষণকারী ব্যক্তি ছাড়া তার সকল বান্দাদের ক্ষমা করে দেন । মহান সৃষ্টি কর্তা এই মুবারক রজনীটি ভাগ্য রহমত করূনা বন্টনের রাত বলেছেন । আল্লাহ নবী মুহাম্মদ ( সা:) আরো বলেছেন শবেবরাতকে সন্মান করো , মনে রাখবে মানুষের জন্ম মৃত্যু মঙ্গল অমঙ্গল , রিঝিক দৌলত ভালো মন্দ এ রাতেই নিধারণ হয় এবং এই রাতেই রাব্বুল আলামীনের নিকট বান্দার আমল নামা পেশ করা হয়। এই রাতের গুরুত্ব ও তাৎপর্য অত্যাধিক , হযরত আবু হুরায়রা (রা:) হতে বর্ণিত আছে প্রিয় নবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) এরশাদ করেছেন ,কোন এক মধ্য শাবানের রাতে হযরত জিব্রাইল ( আ:) এসে প্রিয় নবী মোহাম্মদ ( সা:) কে বলেছেন আপনার মাথা আকাশের দিকে উত্তোলন করুন কেননা এই রাত অত্যাধিক প্রাচুর্যমন্ডিত , এই রাতে মহান রাব্বুল আলামিন তার রহমতের তিনশ দরজা খুলে দেন । হযরত আলী ইবনে আবু তালিব (রা:) হতে বর্ণিত আছে রাসুল (সা: ) এরশাদ করেছেন যখন অর্ধ শাবানের রাত উপস্থিত হয় তখন তোমরা রাত জেগে ইবাদত কর এবং দিনের বেলায রোজা রাখ । কেননা আল্লাহ তা’আলা ঐ রাতে সূর্ষ্যাস্তের সাথে সাথে প্রথম আসমানে অবতীর্ণ করেন এবং ঘোষনা দিতে থাকেন , কোন ক্ষমা প্রার্থনা কারী আছো কি ? আমি তোমায় ক্ষমা করে দিব , কোন রিঝিক প্রার্থী অছো কি ? আমি তোমাকে রিঝিক প্রদান করব , কোন বিপদগ্রস্থ ব্যক্তি আছো কি ? আমি তোমাকে বিপদ থেকে মুক্তি দিব ।  এভাবে সূর্ষাদয় পর্ষন্ত ঘোষনা আসতে থাকে যারা অপকর্মের জন্য অনুতপ্ত , সুখ শান্তি প্রত্যাশি , আয় উপার্জন , ধন সম্পদ অর্জনে কামনা কারী ও পরলৌকিক জীবনে নাযাত , মুক্তিলাভ , আল্লাহর নৈকট্য লাভের আশা করছ তোমরা এই পূর্ণ্যময় রজনীতে কায়মনে ফরিয়াদ প্রার্থনা কর আমি কবুর করে নিব। এই পবিত্র রজনী সম্পর্কে পবিত্র হাদিস শরীফে অনেক বাণী বিদ্যমান , হযরত আবু বকর সিদ্দিক ( রা:) হতে বর্ণিত হযরত মুহাম্মদ( সা:)  এরশাদ করেছেন যে , হে বিশ্বাসী  আল্লাহর বান্দা  তোমরা শাবান চাঁদের ১৪ তারিখ দিবাগত রাত্রে নিদ্রা ত্যাগ করে গভীর ধ্যানে ইবাদত বন্দেগীতে রত হও কেননা এই রাত অতিব ফজিলত ও পূর্ণ্যময় । মহান রাব্বুল আলামিন আগেই তার বান্দাদের জানিয়ে দিয়েছেন কারো কিছু চাওয়ার থাকলে এই মোবারক রজনীতে যেন কামনা করে। অন্য এক হাদিসে বর্ণিত আছে , একদা হযরত আয়েশা (রা:) কে মহানবী (সা: ) জানান যে আজ সেই রাত যে রাতে আগামী বছর যতজন লোক মৃত্যু বরণ করবে এবং যতজন শিশু জন্ম গ্রহন করবে তার তালিকা তৈরী করা হয় এবং এই রাতে মানুষের রিঝিক অবতীর্ণ করা হয় । এই রাতে আল্লাহ পাকের তরফ থেকে মৃত্যু হরণ কারী দায়িত্ব প্রাপ্ত হযরত আযরাইল (আ:) কে একটি তালিকা দেওয়া হয় যাতে এ বছর যে সকল মানুষের প্রাণ হরণের নির্দেশ দেওয়া থাকে । অন্য এত তাফসীর থেকে জানা যায় , শবে বরাত রাতে প্রার্থনা করলে সে বছরের গুণাহ সমুহ মাফ করে দেওয়া হয় আর জুম’আ রাতে ইবাদত করলে সে সপ্তাহের গুণাহ সমুহ মাফ করে দেয়া হয় আর শবে কদর রাতে ইবাদতের উছিলায় সারা জীবনের গুণাহ সমুহ মাফ করে দেওয়া হয় , এই কারণে শবে বরাতকে গুণাহ মাফের রাত বলা হয়ে থাকে । মহান আল্লাহ পাকের নির্দেশ মোতাবেক যে ব্যক্তি এই রাতে ইবাদতে মগ্ন থাকবে  তারা অশেষ পূর্ণ্যর অধিকারী হবে এবং আখেরাতে মুক্তির সন্ধান পাবে । এভাবে এই মহান রাতে যে অণ্যায় কাজে লিপ্ত থাকবে তাদের শাস্তিও অনেক কঠিনতর হবে । তবে এই পবিত্র রাতে কিছু হতভাগ্য বান্দা রয়েছে যেমন মুসরিক , হিংসুক, অন্যায় ভাবে হত্যাকারী , ব্যভিচার , আত্বীয় সম্পর্ক ছিন্নকারী , টাকনুর নীচে লুঙ্গি পায়জামা পেন্ট পরিধানকারী , পিতা মাতার অবাধ্য সন্তান , মাদকদ্রব্য সেবন কারী কে ক্ষমা করেন না। পিতা মাতার অবাধ্য সন্তানদের উচিত তারা যেন বাবা মায়ের নীকট ক্ষমা প্রার্থনা করে , এই মর্মে রাসুল ( সা:) বলেছেন মহান রাব্বুল আলামীন ঐ রাতে ক্ষমা প্রার্থনা কারীদের ক্ষমা করার কথা ঘোষনা দিয়েছেন । অপর এক হাদিসে বর্ণিত আছে এই পবিত্র রাতে যেন বান্দা তাদের মৃত মা বাবা আত্বীয়  স্বজনদের কবর জিয়ারত করে কেননা রাসুল ( সা: ) এই রাতে জান্নাতুল বাকীতে হাজির হয়ে কবর জিয়ারত করতেন । এ ছাড়া এ রাতে বেশী করে নফল নামাজ , সালাতুল তাসবীহ আদায় , কোরআন তেলোয়াত , তাসবীহ তাহলীল পাঠ , ঝিকির আজগার ,দরূদ সালাম , মিলাদ মাহফিল  গরীব মিসকিন ও এতিম দুস্থ নি:অসহায়দের  সাধ্য মত সাহার্য্য করা ইত্যাদি পূর্ণময় কাজে নিজেকে নিয়োজিত রাখলে অফুরন্ত বরকত ও নেয়ামতের অধিকারী হওয়া যায় ।

পরিশেষে এই রাত উদযাপনে  মনে রাখতে হবে আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মদ ( সা: ) এই মহিমান্বিত রজনী যেমনটা গুরূত্ব ও মান দিয়েছেন তেমনি ভাবে আমাদের ততটা গুরুত্বও মুল্যায়ন করতে হবে । পক্ষান্তরে স্বরণ রাখতে হবে এই ফজিলত নেয়ামত ও বরকতময় করূণার রজনীর মহাত্ব গুরুত্ব বজায় রাখতে পটকা ফোটানো  আতশবাজি , তারাবাতি , আলোকসজ্জা , অহেতুক মোমবাতী জ্বালিয়ে কবর মাজার আলোকময় ইত্যাদি শরিয়ত বিবর্জিত কর্মকান্ড থেকে বিরত থাকতে হবে এবং অপরকে এ বিষয়ে সতর্ক রাখতে হবে। এহেন কর্মকান্ডে আল্লাহ পাকের রহমতের পরিবর্তে অশেষ গুণাহগার হতে হবে  । আমাদের সমাজে বহুকাল ধরে প্রচলন আছে ঘরের নারীরা সকাল থেকে শুরু করে অধিক রাত অবদি হালুয়া রুটি সহ নানাহ মুখরোচক খাবার তৈরী করে বাসা বাড়িতে বিলি করা , এতে বাড়তি পরিশ্রমের ফলে ইবাদত থেকে বিরত থাকতে হয় । যা শুধু মাত্র কুসংস্কারে পরিপূর্ণ । এই পবিত্র রাতে ইবাদতের সুবধার্থে মা বোনদের উচিত বাড়তি পরিশ্রম থেকে বিরত থেকে রাতের প্রথম ভাগ থেকে ইবাদতে মগ্ন হওয়া ।

প্রকৃতপক্ষে মধ্যবতী শাবান রাতে এ দেশের ধর্মপ্রাণ মানুষের মধ্যে এক অভুতপুর্ব জাগরণ সৃষ্টি হয় । ইমানদার মানুষের মধ্যে অতুলনীয় ও অভাবিত এক ধর্মীয় অনুভুতি ও চেতনা পরিলক্ষিত হয় । শবেবেরাত মূলত আল্লাহ ইবাদতের রাত , তার রহমত ও পরম সৌভাগ্য তার কাছ থেকে চেয়ে নেওয়ার রাত ।

আল্লাহ রাব্বুল আলামিন যেন মুসলিম জাহানের সুখ শান্তি ও সমৃদ্ধ রচনায় তার রহমতের দরজা সারা বছর খোলা রাখেন । পূর্ণ্যময় এই রজনী আলোকমালায় মুসলমানদের অন্তর হোক উদ্ভাসিত , দুর হোক কালিমা , সমৃদ্ধি আসুক সবার ঘরে  এ রাত্রি সমগ্র জাতির জন্য কল্যাণ বয়ে আনুক এটাই কায়মনোবাক্য প্রার্থনা ।

Related Posts

সর্বশেষ ও আলোচিত

সোনারগাঁওয়ে নৈশ প্রহরীর রহস্যজনক মৃত্যু

সোনারগাঁওয়ে নৈশ প্রহরীর রহস্যজনক মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে এক পোল্টি ফার্মের নৈশ...

সোনারগাঁওয়ে হাজী আব্দুল মতিন স্মরনে স্বরণ সভা

সোনারগাঁওয়ে হাজী আব্দুল মতিন স্মরনে স্বরণ সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল...

সোনারগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় সাংবাদিক নিহত

সোনারগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় সাংবাদিক নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ : সড়ক দূর্ঘটনায় গুরুত্বর আহত সাংবাদিক ৪...

সোনারগাঁওয়ে বিএনপি নেতা বিল্লাল চেয়ারম্যানের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

সোনারগাঁওয়ে বিএনপি নেতা বিল্লাল চেয়ারম্যানের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত

  নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ : সোনারগাঁও উপজেলার সনমান্দী ইউনিয়ন পরিষদের...

বাংলার ইতিহাসে ২৩ জুন

বাংলার ইতিহাসে ২৩ জুন

শাহাদাৎ হোসেন শিপন : বাঙালির ইতিহাসের একটি তাৎপর্যপূর্ণ দিন জুন মাসের...

সোনারগাঁও থানার এসআই আজাদের সহযোগিতায় অনার্স পরীক্ষার্থী রিকশা চালক পিপুলের ভাগ্যের পরিবর্তন

সোনারগাঁও থানার এসআই আজাদের সহযোগিতায় অনার্স পরীক্ষার্থী রিকশা চালক পিপুলের ভাগ্যের পরিবর্তন

নিজস্ব প্রতিবেদক,সোনারগাঁও নিউজ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও থানার পদন্নোতি পাওয়া সেই এসআই আবুল...

সোনারগাঁওয়ে মায়ের কোলে চড়ে পরীক্ষা দিয়ে জিপিএ-৪.৪৫ পেলেন প্রতিবন্ধি রিনা

সোনারগাঁওয়ে মায়ের কোলে চড়ে পরীক্ষা দিয়ে জিপিএ-৪.৪৫ পেলেন প্রতিবন্ধি রিনা

শাহাদাত হোসেন রতন : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে মায়ের কোলে চড়ে এসএসসি পরীক্ষা...

সোনারগাঁও আসনে নৌকার নতুন মুখ আনোয়ারুল কবির ভূইয়া

সোনারগাঁও আসনে নৌকার নতুন মুখ আনোয়ারুল কবির ভূইয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ: নারায়ণগঞ্জ-৩ (সোনারগাঁও) আসনে নৌকার নতুন  মুখ  আনোয়ারুল...

সোনারগাঁওয়ের অপরূপ নিদর্শণ সেই ঠাকুর বাড়িটি

সোনারগাঁওয়ের অপরূপ নিদর্শণ সেই ঠাকুর বাড়িটি

হাজী মোহাম্মদ মহসীন: রাজধানী ঢাকা থেকে মাত্র ২৪ কিলোমিটারের পথ পাড়ি...

সোনারগাঁওয়ে সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সারের মা মমতাজ বেগমের দাফন সম্পন্ন

সোনারগাঁওয়ে সাবেক সাংসদ আব্দুল্লাহ আল কায়সারের মা মমতাজ বেগমের দাফন সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ : নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ...