রবিবার, ১৪ অগাস্ট ২০২২, ০৯:০৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
       

সোনারগাঁওয়ে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গলি দেখিয়ে ঈদের ছুটিতে সরকারী জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ :
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে সরকারী জায়গা দখল করে অবৈধভাবে দোকান নির্মাণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। নোয়াগাঁও ইউনিয়নের পরমেশ্বরদী বাস ট্যান্ড এলাকায় এ দোকানপাট নির্মাণ করার অভিযোগ উঠে। স্থানীয় ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমানের যোগসাজসে এ দোকান নির্মাণ করা হচ্ছে বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। গত কয়েকদিন আগে ওই স্থানের কয়েকটি বড় আকৃতির রেইনট্রি কড়ই গাছ কেটে এ দোকান নির্মাণ করার উদ্যোগ নিলে স্থানীয় প্রশাসন এ নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয়। পরবর্তীতে প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গলী দেখিয়ে ঈদের ছুটিতে এ দোকান নির্মাণ কাজ শেষ করে।

জানা যায়, উপজেলার বারদি ইউনিয়নের পরমেশ্বরদী পুরান বাস ট্যান্ড এলাকায় নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মনিরুজ্জামান মনির সরকারি জায়গা দখল করে দোকান পাট নির্মাণ করেন। এ দোকান পাট নির্মাণের ফলে ওই এলাকায় প্রতিদিন যানজট সৃষ্টি হবে বলে জানিয়েছেন এলাকাবাসী।

সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, বারদি বাজারের পুরাতন ব্রীজের দক্ষিন পাশে সরকারি সম্পত্তি বিএনপি নেতা আব্দুল জব্বার ও উত্তর পার্শ্বে কবির হোসেন, ইমরান, শামীম ও মাসুম মোল্লা সরকারী জায়গা দখল করে দোকান নির্মাণ করেন। এছাড়াও নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মনির হোসেন একটি অংশ দখল করেছেন। দখল করা জায়গায় তার দোকানপাট নির্মানাধীন। এ বিষয়ে স্থানীয় প্রশাসন নিরব ভূমিকায় রয়েছেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, মনির মেম্বার কোন প্রকার লিজ ছাড়াই সরকারী সম্পত্তি ও নদীর জায়গা দখল করে দোকানঘর নির্মাণ করছেন। দোকান ঘর নির্মাণ হলে এ অঞ্চল যানজটের সৃষ্টি হবে। এছাড়াও তিনি উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সামসুল ইসলাম ভূঁইয়ার প্রভাবে বিভিন্ন স্থানে জায়গা দখল ও সরকারী গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়ে কেউ প্রতিবাদ করলেই হামলা ও মামলার ভয় দেখান। ঈদের ছুটির সুযোগ পেয়ে তারা এ নির্মাণ কাজ করে।

এলাকাবাসীর আরো অভিযোগ, পরমেশ্বরদী পুরাতন ব্রীজ এলাকায় পরিত্যক্ত জায়গা প্রভাবশালীরা দখল করে নিয়ে যাচ্ছেন। স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা, চেয়ারম্যান, ভ‚মি কর্মকর্তাদের যোগসাজসে প্রভাবশালীদের ছত্রছায়ায় দখলে নিয়ে নিচ্ছে। এর আগেও ওই এলাকায় কয়েকটি জায়গা ভূমি কর্মকর্তাকে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে ম্যানেজ করে দখল করেছেন।

এলাকাবাসী আরো জানান, মনির মেম্বার এ দোকান নির্মাণের আগেই কয়েকজনের কাছ থেকে ১-২ লাখ টাকার বিনিময়ে দোকান ভাড়া দেওয়ার জন্য টাকা নিয়েছেন। সরকারী জায়গায় তিনি দোকান ভাড়া দিচ্ছেন।

নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সামসুল আলম সামসু জানান, ঈদের ছুটির সুযোগ নিয়ে মার্কেট নির্মাণ করা হয়েছে। এর আগে এর নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।
অভিযুক্ত নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মনিরুজ্জামান মনির বলেন, মার্কেটের জায়গা লিজের জন্য আবেদন করা হয়েছে। তবে লিজের আগে কেন নির্মাণ কাজ করা হলো এ বিষয়ে তিনি কোন উত্তর দেননি।

সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. তৌহিদ এলাহী জানান, সরকারী জমিতে কোন প্রকার দোকান নির্মাণ করা হলে তা ভেঙ্গে দেওয়া হবে। এ বিষয়টি সহকারী কমিশনারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তার যোগসাজসের বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.
© All rights reserved © Sonargaonnews 2022
Design & Developed BY N Host BD