শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:২২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
       
শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে করোনা যোদ্ধাকে নিয়ে অপপ্রচার ও  হত্যার চেষ্টার অভিযোগ, দোষীদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন  সোনারগাঁওয়ে বাড়ির মালিক ও তার ছেলেকে পিটিয়ে জখম, ভাড়াটিয়া শ্লীলতাহানি সোনারগাঁওয়ে লোক প্রযুক্তি ও পালকির গান শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত সোনারগাঁওয়ে তিনদিন ব্যাপী বউ মেলা চলছে সোনারগাঁওয়ে যাদুঘরে পক্ষকাল ব্যাপী বৈশাখি মেলা শুরু কাঁচপুরে কলেজ শিক্ষার্থী ছিনতাইকারী কবলে,  মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনতাই বারদী সমাজ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে ৬শ’ পরিবারের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ সনমান্দিতে আড়াই হাজার শ্রমজীবি মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ  জামপুরে মাতৃভূমি সমাজকল্যাণ ফাউন্ডেশনের উদ্যাগে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ ঈদের দিন পর্যন্ত আমরা সবাই মাঠে কাজ করে যাবো–হাইওয়ে পুলিশ প্রধান

সোনারগাঁওয়ে ইউপি সদস্যকে অপহরণ করে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ :
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে ইউপি সদস্যকে অপহরণ করে কুপিয়ে পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা চালিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। সোমবার বিকেলে উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের চৌরাপাড়া মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। আহত ওই ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মো. মনিরুজ্জামানকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহত ইউপি সদস্যের ছেলে মো. বিশাল বাদি হয়ে মঙ্গলবার সকালে ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে সোনারগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

জানা যায়, উপজেলা নোয়াগাঁও ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড সদস্য মো. মনিরুজ্জামানের ছেলে বিশালের সঙ্গে পাশ্ববর্তী এলাকায় মোস্তফার সঙ্গে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গত সোমবার ইউপি সদস্য মনিরুজ্জামান ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে শেখকান্দি এলাকা থেকে অটোযোগে ইউপি সদস্যকে অপহরণ করে নিয়ে যায় ওই এলাকার ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল্লাহ সরকারের ছেলে জানে আলম, সাইফুল ইসলাম, সাব্বির সরকার, নয়নসহ ১৪-১৫জনের একটি দল। অপহরণ করে নিয়ে এক পর্যায়ে তাকে লোহার রড, দা, চাইনিজ কুড়াল, হকিস্টিক ও এসএসের পাইপ দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা চেষ্টা করে। পরে তার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে অপহরণকারীরা পালিয়ে যায়। এসময় ইউপি সদস্যেকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত ইউপি সদস্য মো. মনিরুজ্জমান বলেন, এলাকার কয়েকজন যুবকের সঙ্গে আমার ছেলে কথাকাটাকটি ও হাতাহাতি হয়। এ বিষয়ে স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করে দেওয়ার প্রতিশ্রæতি দিয়েছি। সোমবার পরিষদে কাজ শেষে বের হওয়ার পর নোয়াগাঁও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল্লাহ সরকারের ছেলে জানে আলমের নেতৃত্বে ১৪-১৫ জনের একটি দল অটোযোগে আমাকে তুলে নিয়ে আসে। এক পর্যায়ে সে আমাকে কলেমা পড়ে নেওয়ার বলে। আমাকে সেখানে হত্যা করবে। এসময় আমাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। পরে তারা দা, চাইনিজ কুড়াল, লোহার রড দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করে।

অভিযুক্ত মো. জানে আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমাদের এলাকার লোকজনকে বিনা দোষে মেম্বারের দুই ছেলে মারধর করে। তাদের ভয়ে এ এলাকার লোকজন বারদি বাজার করতে যেতে পারে না। তার ছেলেরা আমাদের এলাকার এক ছেলেকে নির্জন স্থানে নিয়ে গলায় দা ধরে হত্যা করবে বলে ভিডিও ধারণ করে সেটা তার ফেসবুক স্টোরিতে শেয়ার করে। এ বিচার চাইতে গিয়ে তালবাহানা করে মনিরুজ্জামান মেম্বার। এটার মিমাংসার জন্য নিয়ে আসার পর বিক্ষুদ্ধ লোকজন তাকে পিটিয়ে আহত করে।

সোনারগাঁও থানার পরির্দশক তদন্ত মোহাম্মদ আহসানউল্লাহ বলেন, ইউপি সদস্যকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে আহত করার ঘটনায় অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © Sonargaonnews 2022
Design & Developed BY N Host BD