সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
       

দুই প্রবাসীর বাড়িতেসহ ৪ বাড়িতে ডাকাতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, জামপুর :
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে দুই প্রবাসীর বাড়িসহ ৪ বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।  মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জামপুর ইউনিয়নের ঝালকান্দি গ্রামের ইকবাল হোসেন, সাইফুল ইসলাম চঞ্চল, আল আমিন ও নোয়াগাঁও ইউনিয়নের আব্দুল আজিজের বাড়িতে ডাকাতি সংঘটিত হয়। ডাকাতরা তাদের ঘরে প্রবেশ করে নগদ সাড়ে ৯ লাখ টাকা, ২০ ভরি স্বর্ণলংকার, ৫টি ডায়মন্ডের আংটি ও ৭টি মোবাইলসেটসহ মূল্যবান জিনিসপত্র লূট করে নিয়ে যায়। ডাকাতির ঘটনায় গতকাল বুধবার সোনারগাঁও থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার জামপুর ইউনিয়নের ঝালকান্দি গ্রামের মঙ্গলবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ১২-১৫ জনের ডাকাত দল দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে প্রথমে  আমেরিকা প্রবাসী দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আল আমিনের বাড়ির কলাপসিপল গেইট ও দরজা ভেঙ্গে প্রবেশ করে। ঘরের সবাইকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে নগদ ৫ লাখ টাকা, ১৫ ভরি স্বর্ণ ও ডায়মন্ডের ৫টি অংটি লুট করে নিয়ে যায়। পরে পাশ্ববর্তী ইকবালের বাড়িতে প্রবেশ করে তার স্ত্রী চায়না বেগমকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত পা বেধে আলমারী থেকে নগদ দুই লাখ টাকা ও ২ ভরি স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। পরে ইকবালের ভাই সাইফুল ইসলাম চঞ্চলের বাড়িতে প্রবেশ করে তাকে ও তার স্ত্রী নুরজাহানের হাত পা বেঁধে তার ঘরে থাকা নগদ ৫০ হাজার টাকা ও এক ভরি স্বর্ণ নিয়ে যায়।

এদিকে রাত সাড়ে তিনটার দিকে পাশ্ববর্তী নোয়াগাঁও ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের সৌদী প্রবাসী আব্দুল আজিজের বাড়িতে হানা দেয় ডাকাত দল। ডাকাতরা বাড়ির সকল সদস্যকে অন্ত্রের মুখে জিম্মি করে তার বাড়ি থেকে নগদ ২ লাখ টাকা ও দুই ভরি স্বর্ণ লুট করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় আমেরিকা প্রবাসীর আল আমিনের বাবা দেলোয়ার হোসেন ও ইকবাল হোসেন বাদি হয়ে গতকাল বুধবার সোনারগাঁও থানায় পৃথক অভিযোগ দায়ের করেন।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, উত্তরাঞ্চলের জামপুর ও নোয়াগাঁও  ইউনিয়নে একের পর এক ডাকাতি সংঘটিত হচ্ছে। গত দুই মাসে পুলিশ কর্মকর্তার বাড়িসহ ১৩টি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতি ও  অপরাধমূলক কর্মকান্ড দমনের তালতলা বাজারে পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করা হলেও দিন দিন অপরাধের মাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। পুলিশের উদাসীনতার কারনে একের পর এক ডাকাতির ঘটনা ঘটে যাচ্ছে। পুলিশের পক্ষ থেকে কোন প্রকার প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

সোনারগাঁও  থানার ওসি মোহাম্মদ মাহাবুব আলম জানান, ডাকাতির ঘটনায় অভিযোগ গ্রহন করা হয়েছে। বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। ডাকাতির সঙ্গে জড়িত ডাকাতদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © Sonargaonnews 2022
Design & Developed BY N Host BD