শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২, ০৪:০৬ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
       
শিরোনাম :
মিডিয়া ফেলোশিপসহ  ৮ জন কারুশিল্পী পুরস্কার পেলেন ১০ জুলাই ঈদুল আজহা  মুক্তিযোদ্ধাদের বেকার সন্তানদের জন্য ২০টি কম্পিউটার উপহার দিলেন জেলা পরিষদ মিডিয়া ফেলোশীপ পুরষ্কার পেলেন সাংবাদিক রবিউল হুসাইন সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর ১০টি উদ্ভাবনী উদ্যোগ নিয়ে দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত বৈদ্যেরবাজারের সাবেক চেয়ারম্যান ডাক্তার আব্দুর রউফ এর ইন্তেকাল প্রধানমন্ত্রীর দৃঢ় মনবলের কারণেই পদ্মা সেতু নির্মাণ হয়েছে – মেয়র আইভী পিরোজপুর ইউনিয়ন পরিষদে উপ সচিবের পরিদর্শন,  সন্তোষজনক মত প্রকাশ সোনারগাঁওয়ে ট্রলারে ডাকাতি,  ২০ জন আহত, ৩০ লাখ টাকার মালামাল লুট সোনারগাঁওয়ে আওয়ামীলীগের আনন্দ র‌্যালী ও আলোচনা সভা

সেলিম মিয়ার সুদের ফাঁদে কাঁচপুরের সাধারণ মানুষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সোনারগাঁও নিউজ  ঃ
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে  কাঁচপুরে সর্বত্রই বেড়েই চলছে সুদের ব্যবসা। ভিন্ন মেয়াদি সুদের ফাঁদে জিম্মি হয়ে পড়ছেন অসহায় হত-দরিদ্র মানুষ । রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। অসাধু সুদ ব্যবসায়ী সোনাপুরের সেলিম মিয়া বনে যাচ্ছে পাহাড় সমান কালো টাকার মালিক। আর অভাব অনটের সংসারে অন্ন বস্ত্র বাসস্থানের প্রয়োজনে সুদ গ্রহীতারা হারাচ্ছে ভিটেমাটি -সহায় সম্পত্তি সহ অনেক কিছু।
জানা যায়, সোনারগাঁওয়ের  কাঁচপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামে ছড়িয়ে আছে তার সুদের ব্যবসা । অসাধু সুদ ব্যাবসায়ী সেলিম মিয়া দৈনিক, সাপ্তাহিক ও মাসিক ভিত্তিতে সুদের ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে। অত্র এলাকায় সুদের ব্যবসা মহামারী আকার ধারণ করেছে। সারাদেশ করোনার  কারনে যখন ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ ছিল, তখনই সেলিম মিয়ার সুদ ব্যবসায়ী রোষানলে পড়ে অসহায় হয়ে পড়েছে সমাজের নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবারের সাধারণ মানুষগুলো।
কাঁচপুরের বিভিন্ন এলাকায় চড়া সুদে হত-দরিদ্র,নিম্নবিত্ত,মধ্যবিত্ত মানুষের মাঝে ভিন্ন মেয়াদে ঋন প্রদান করেছেন। কিন্তুু তার ঋন দানের কোন সরকারি অনুমতি নেই। কোন এনজিওর সাথে ও তার সংশ্লিষ্টতা খুজে পাওয়া যায়নি। কিন্তু দিনের পর দিন কোন বাঁধা বিপত্তি ছাড়াই চালিয়ে যাচ্ছে সুদের ব্যবসা।
ভুক্তভোগী মাসুম বিল্লাহ বলেন,সেলিম মিয়ার সুদের ব্যবসা দিনের পর দিন বেড়েই চলছে। সুদের টাকা পরিশোধ করতে না পারলে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখিয়ে খালি চেকে তার ইচ্ছামত টাকা বসিয়ে চেকটি ডিজঅনার করে মামলা দিয়ে আসলের থেকে ২০-৩০ গুন বেশি সুদের টাকা আদায় করেন। আমিও তার কাছ থেকে টাকা নিয়ে ছিলাম, আমার কাছ থেকে খালি চেক নিয়ে হুমকি দিচ্ছে সুদের টাকা না দিলে আমার চেকে  ইচ্ছামত টাকা বসিয়ে চেকটি ডিজঅনার করে মামলা দিয়ে হয়রানি করাবেন।
সোনাপুরের মৃত আব্দুল কুদ্দুসের ছেলে নুরুল হক,রেহান উদ্দিনের ছেলে ছোটন,মৃত সফর আলীর ছেলে নাসির উদ্দিন, উত্তরপাড়া আঃগফুরের ছেলে স্বর্ণ ব্যবসায়ী মামুনও তার সুদের ফাঁদে এখন নিঃস্ব প্রায়।
বেহাকৈর এলাকার আব্দুল মালেক কাঁচপুর মার্কেটের জুতার ব্যবসায়ীকেও এলাকা ছাড়া করেছে। সে এখন কোথায় আছে কেউ জানে না।
মাসুম বিল্লাহ আরও বলেন,সোনাপুর এলাকার অনেক লোক তার খপ্পরে পরে বাড়ি ঘরের আসবাবপত্র বিক্রি করেও সুদের টাকা পরিশোধ করতে পারছে না। তিনি সুদে টাকা দিয়ে ১০০ টার সাদা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষরসহও ব্যংকের খালি চেক জামানত নিচ্ছেন যা সাধারণ মানুষের জন্য বড় হুমকি।তিনি সমাজের এই ক্ষতিকর সমাজ-বিরোধী অবৈধ সুদ ব্যবসা উচ্ছেদে সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষ ও প্রশাসনের জরুরী পদক্ষেপ  কামনা করছেন।
পোস্টটি শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.
© All rights reserved © Sonargaonnews 2022
Design & Developed BY N Host BD