বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:২২ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ
       
শিরোনাম :
নিয়মিত সাব রেজিষ্ট্রারের দাবিতে দলিল লেখকদের কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ভবন উদ্বোধন ও পিঠা উৎসব সোনারগাঁওয়ে যুবক আল আমিন হত্যা মামলায় বড় ভাইসহ ৪ জন আটক সোনারগাঁওয়ে লোকজ উৎসবে উদীচী’র সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা অনুষ্ঠিত বারদী পাইক পাড়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের মাঠ কেটে স্কীমের পাইপ লাইন স্থাপন জ্যোতিবসুর পৈত্রিক বাড়ি ‘বারদী পর্যটন কেন্দ্র’ উদ্বোধন সনমান্দি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত  ছুটির দিনে জমে উঠেছে কারুশিল্প মেলা ও লোকজ উৎসব সোনারগাঁওয়ে আওয়ামীলীগের কর্মী সম্মেলনে সংঘর্ষের ঘটনায় থানায় অভিযোগ

সোনারগাঁওয়ে প্রধানমন্ত্রীর ঘর ও জমি পেয়ে ওরা এখন স্বাবলম্বী

হাসান মাহমুদ রিপন :
মরিয়ম বেগম। নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের ছনপাড়া গ্রামে তার বাড়ি। তার কোন জমি ও ঘর ছিল না। এক সময় পরের বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতেন। বর্তমানে তিনি আর এ কাজ করেন না। মুজিববর্ষে ছনপাড়া এলাকায় ভ‚মিহীন ও গৃহহীনদের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দুই শতাংশ জমি ও ঘর পেয়েছেন। বর্তমানে তিনি আশ্রয়ন প্রকল্পেই পিঠা বিক্রি করেন।

মরিয়ম বেগম জানান, এখন তিনি প্রধানমন্ত্রীর দেয়া ঘরের পাশেই পিঠা বিক্রি করে সংসার চালান। তার সঙ্গে তার মা বসবাস করেন। তিনি আর পরের বাড়িতে ঝিয়ের  কাজ করেন না। এখন তিনি স্বাবলম্বী। এক সময় তিনি ২ হাজার টাকার বিনিময়ে অন্যের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। প্রতি মাসেই তার ২ হাজার টাকা এখন বেচে যাচ্ছে। তার ঘরের পাশে তিনি আম, কাঠাল, পেয়ারা, নারিকেল গাছসহ বিভিন্ন সবজির গাছ রোপন করেছেন।

ছনপাড়া আশ্রয়ন প্রকল্পের আরেক বাসিন্দা আবুল কাশেম জানান, তার পরিবারের ৪ জন সদস্য। আগে তিনি তেমন কাজ করতে পারতেন না। এখন তিনি ঘর পাওয়ার পর পার্শ্ববর্তী মেঘনা নদীতে মাছ ধরে সংসার নির্বাহ করেন। তিনিও ঘর ভাড়া করে বসবাস করতেন। ওই সময়ে তার সংসারে অভাব অনটনে থাকতেন। এখন তিনি স্বাবলম্বী। তিনিও তার ঘরের পাশে বিভিন্ন সবজির বাগান ও ফলদ গাছ রোপন করেছেন।

ষার্টোদ্ধ ফাতেমা বেগম। তিনি উপজেলার উদ্ভবগঞ্জ এলাকায় উপজেলা পরিষদের সরকারি কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বাস ভবনে ঝিয়ের কাজ করেন। তার বাড়ি ছিল পিরোজপুর ইউনিয়নের খাসের চর গ্রামে। মেঘনা নদী ভাঙ্গনে তার বাড়িঘর নদীতে বিলীন হয়ে যায়। আশ্রয়ন প্রকল্পে ছনপাড়ায় প্রধানমন্ত্রীর ঘর ও জমি পেয়ে তিনি একমাত্র নাতিকে নিয়ে বসবাস করেন। ঘর পাওয়ার পর তিনি প্রধানমন্ত্রীর প্রতি অশ্রুসজল চোখে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

হামছাদী আশ্রয়ন প্রকল্পে বাসিন্দা গৃহবধু আমেনা বেগম জানান, ঘর পাওয়ার পর তারা এক সঙ্গে বসবাস করছেন। স্বামী গাড়ি চালক। তার শাশুড়ি খোদেজার নামে এ ঘর ও জমি বরাদ্ধ পেয়েছেন। এখন তাদের নিজস্ব জমি ও ঘর আছে এটাই তার আনন্দ। তার বাড়ির চারপাশে গাছ গাছালি লাগিয়ে তার ফলন খাচ্ছেন। আশ্রয়ন প্রকল্পের সকলের এক সঙ্গে মিলে মিশে থাকছেন।

শাহনাজ বেগমের স্বামী গাড়ি চালক। তার নামে ঘর ও বাড়ি বরাদ্ধ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ৪ জন পরিবারের সদস্য তারা। তার শশুর শাশুড়ি অন্য জায়গার ভাড়া থাকেন। দুই কক্ষের ঘরে থাকায় জায়গা না থাকায় তাদের সঙ্গে বসবাস করা সম্ভব হচ্ছে না। সম্ভব হলে তাদের এক সঙ্গে নিয়ে আসতেন। এ সংসারও এখন স্বাবলম্বী। এখন আর তাদের অভাব নেই।

সরেজমিনে আশ্রয়ন প্রকল্পে গিয়ে দেখা যায়, আশ্রয়ন প্রকল্পের বাসিন্দারা সকলেই মিলে মিশে বসবাস করছেন। একজনের বিপদে অন্যজন সহযোগিতা করছেন বলে জানিয়েছেন তারা। এখন সকলেই তারা প্রতিবেশী। সকল সদস্যরাই ঘরের পাশে বিভিন্ন প্রকার সবজি ও ফলের চারা রোপন করেছেন। রোপন করা সবজি ও ফলের চারা পরিচর্যা করেছেন। উপজেলা প্রশাসনের লোকজনও তাদের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ করছেন। বিভিন্ন সমস্যায় তারা তাদের সহযোগিতা করছেন বলে জানিয়েছেন।

সোনারগাঁও উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে ১০০ জন গৃহহীন প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেয়েছেন। দ্বিতীয় পর্যায়ে ৭০ জন। তৃতীয় পর্যায়ে এখনো ৩৫টি ঘর নির্মানাধীন রয়েছে। এ ৩৫টি ঘর শীঘ্রই গৃহ ও ভুমিহীনদের মাঝে হস্তান্তর করা হবে। বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের খামারগাঁও, সনমান্দি ইউনিয়নের ইমানেরকান্দি ভাটির চর ও পিরোজপুর ইউনিয়নের নিউটাউন এলাকায় আশ্রয়ন প্রকল্প রয়েছে। এছাড়াও কাঁচপুর, সনমান্দি, সাদিপুর, সোনারগাঁও পৌরসভাসহ বিভিন্ন এলাকায় জমিতে গৃহহীনরা ঘর পেয়েছেন।

সোনারগাঁও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তৌহিদ এলাহী জানান, মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার গৃহহীন ও ভুমিহীন প্রায় ২ শতাধিক পরিবারকে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে কিছু ঘর নির্মাণাধীন। নির্মাণ কাজ শেষ হলে তালিকাভ‚ক্তদের মাঝে হস্তান্তর করা হবে।

পোস্টটি শেয়ার করুন

আপনার মতামত দিন

পোস্টটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © Sonargaonnews 2022
Design & Developed BY N Host BD